সোমবার ২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

সিরাজগঞ্জে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের পথে আ.লীগের ৬ চেয়ারম্যান প্রার্থী

হুমায়ুন কবির সুমন, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি   মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১
119 বার পঠিত
সিরাজগঞ্জে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের পথে আ.লীগের ৬ চেয়ারম্যান প্রার্থী

দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সিরাজগঞ্জের ১৭টি ইউনিয়নের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের ৬ প্রার্থী বিনা ভোটে জয়ের পথে রয়েছেন। আজ মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে প্রতিদ্বন্দ্বী কোন প্রার্থী না থাকায় বিজয়ের পথে রয়েছেন এসব প্রার্থীরা।

এরা হলেন, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার রতনকান্দি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, ছোনগাছা ইউনিয়নের মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ ও সয়দাবাদ ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান নবিদুল ইসলাম এবং রায়গঞ্জ উপজেলার ধামাইনগর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান রাইসুল হাসান সুমন, ধানগড়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মীর ওবায়দুল মাসুম ও ব্রহ্মগাছা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান গোলাম সরওয়ার লিটন।


সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার আজিজার রহমান ও রায়গঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. কামরুজ্জামান এসব তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, শুরু থেকেই নবীদুল একক প্রার্থী ছিলেন, কিন্তু অন্যদের প্রতিদ্বন্দ্বী থাকলেও মঙ্গলবার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন পর্যন্ত তারা প্রত্যাহার করে নেন। যে কারণে এসব ইউনিয়নের প্রার্থীরা বিজয়ের পথে রয়েছেন।

সিরাজগঞ্জ জেলা নির্বাচন অফিসার শহিদুল ইসলাম জানান, বুধবার প্রতীক বরাদ্দের দিন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত প্রার্থীদের বিজয়ী ঘোষণা করা হবে। এদিকে ২৫ অক্টোবরে আপীলের শেষ দিনে ৪জন চেয়ারম্যান প্রার্থী বৈধতা পেয়েছে। চেয়ারম্যান পদে শিয়ালকোল ইউনিয়নে হাফেজ মো: হাবিবুল্লাহ ও সাইফুল ইসলাম খান কালিয়াহরিপুর ইউনিয়নে হাফেজ মো: আল আমিন, বহুলী ইউনিয়নে গাজী আব্দুর বারী তালুকদার আপীলে বৈধতা পেয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছে।


রতনকান্দি ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থী আওয়ামীলীগ কর্মী হেলাল উদ্দিন মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিনর হয়েছেন। এছাড়া সংরক্ষিত ১১ ও সাধারন পদে ৩৯ জন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে।

বাগবাটী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ইউসুফ আলী ও আমজাদ হোসেন মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম ও মাহফুজুর রহমান এর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও সংরক্ষিত ১৩ ও সাধারন পদে ৪৪ জন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে।


বহুলী ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ নেতা এনামুল হক মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে থানা আওয়ামীলীগ সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য গাজী আব্দুল বারী তালুকদার, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক কুমিটির সদস্য বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন, বহুলী ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য ফরহাদ হোসেন সেখ ও বহুলী ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য সালেহ মাহমুদ বাবু এর মধ্যে নির্বাচিত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও সংরক্ষিত ১৪ ও সাধারন পদে ৫৯ জন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে।

খোকশাবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মো. আব্দুল খালেক, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মো. আব্দুর রউফ মুকুল মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী রাশিদুল ইসলাম রশিদ মোল্লা, মো. ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত প্রার্থী গোলাম হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিএনপি নেতা রেজাউল করিম রোকনী, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মনজুর রহমান বকুল্ এর মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও সংরক্ষিত ১৫ ও সাধারন পদে ১জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে এবং ৩৯ জন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে।

ছোনগাছা ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এস.এম. সাইফুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল মালেক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত মো. রিপন মন্ডল, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন সাবেক আহবায়ক আমজাদ হোসেন, ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. শাহাদত হোসেন কিরন ও বিএনপি নেতা মো. নাজমুল ইসলাম মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে। এছাড়া সংরক্ষিত ১২ ও সাধারন পদে ৫৬ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

শিয়ালকোল ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি গোলাম আজম তালুকদার, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আলামিন সেখ মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সেলিম রেজা, আওয়ামীলীগ নেতা সাইফুল ইসলাম খান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ প্রার্থী হাফেজ মো. হাবিবুল্লাহ, বিএনপি ইউনিয়ন কর্মী মো. এরশাদ রানা, বিএনপি নেতা মঞ্জুরুল আলম সরকার, বিএনপি নেতা আলহাজ জাহিদুল ইসলাম, স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুস সালাম, স্বতন্ত্র প্রার্থী কায়সার আহমেদ এর মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও সংরক্ষিত ১৬ ও সাধারন পদে ৪৪ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

কালিয়া হরিপুর ইউনিয়নে মো. জাহাঙ্গীর হোসেন মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুস সবুর, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মুফতি আল আমিন সিরাজী, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিএনপি নেতা আনিসুর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আব্দুল কাদের সরকার এর মধ্যে নির্বাচিত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও সংরক্ষিত ১২ ও সাধারন পদে ৪২ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। সাধারণ পদে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় ১ জন নির্বাচিত হয়েছেন।

সয়দাবাদে ইউনিয়নে একক প্রার্থী হিসেবে নবীদুল ইসলাম মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। সংরক্ষিত ১৩জন ও সাধারণ পদে ৪৪জন নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করছে।

রায়গঞ্জ উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে ৪৪জন প্রার্থীর ১৯জন মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় ২২জন নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করছে। এর মধ্যে ধামাইনগর ইউনিয়নে ধামাইনগর ইউনিয়নে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত আব্দুল মজিদ মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামী লীগ মনোনীত রাইসুল হাসান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিন হয়েছে।

ব্রহ্মগাছা ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থী আওয়ামীলীগ নেতা নাসির উদ্দিন আহমেদ, রায়গঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি কামরুল হাসান সেখ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামী লীগ মনোনীত গোলাম সরোয়ার লিটন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

ধানগড়া ইউনিয়নে রায়গঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ উদ্দিন মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় আওয়ামী লীগ মনোনীত মীর ওবায়দুল্লাহ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হযেছে।

চান্দাইকোনা ইউনিয়নে ৩জন মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় দুইজনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ঘুড়কা ইউনিয়নে ২জন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করায় ৩জনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ধুবিল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত মিজানুর রহমান রাসেল, বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ধুবিল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম সরকার ও সলঙ্গা থানা কৃষকলীগের দপ্তর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, আওয়ামীলীগের বহিস্কৃত নেতা আব্দুল করিম রেজা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সলঙ্গা থানা বিএনপির সদস্য সচিব হাসান ইমাম তালুকদার এর মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

নলকা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিক, বিদ্রোহী প্রার্থী নলকা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নলকা ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল গফুর, সাবেক বিএনপি নেতা আব্দুল জব্বার সরকার, নলকা ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক রুহুল আমিন ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত শফিকুল ইসলাম এর মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

পাঙ্গাসী ইউনিয়নে ৯জন প্রার্থী করায় ৪জনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সোনাখাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ২জন প্রার্থীর মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আগামী ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলায় ৮টি ইউনিয়ন ও রায়গঞ্জে উপজেলায় ৯টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Facebook Comments Box

Posted ১০:৫৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

Alokito Bogura। Online Newspaper |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  

সম্পাদক ও প্রকাশক:

এম.টি.আই স্বপন মাহমুদ

বার্তা সম্পাদক: এম.এ রাশেদ

যোগাযোগ: ০৯৬১১ ৫১৫৬৬২

ঢাকা অফিস:

বাড়ি#৩৬৬, খিলগাঁও, ঢাকা।

যোগাযোগ: ০১৭৫০ ৯১১৮৪৫

ইমেইল: alokitobogura@gmail.com

বগুড়া অস্থায়ী অফিস:

তালুকদার শপিং সেন্টার, বগুড়া।

বার্তাকক্ষ যোগাযোগ: ০১৭৫০ ৯১১ ৮৪৫

ইমেইল: alokitobogura@gmail.com

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন কর্তৃক নিবন্ধিত।
তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
error: Content is protected !!