সোমবার ৪ঠা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

আলু বীজ সংকটের আশংকা...

শিবগঞ্জে টানা বর্ষনের ফলে অপ্রাপ্ত আলু বাধ্য হয়ে উঠিয়ে নিচ্ছেন কৃষকরা

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি   রবিবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২
75 বার পঠিত
শিবগঞ্জে টানা বর্ষনের ফলে অপ্রাপ্ত আলু বাধ্য হয়ে উঠিয়ে নিচ্ছেন কৃষকরা

বগুড়ার শিবগঞ্জে গত ২দিন আকস্মিক টানা বর্ষন ও হিমেল বাতাস বয়ে যাওয়ায় এই উপজেলা আলু মৌসুমে কৃষকরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। কৃষকের করুন দশায় উপজেলা কৃষি অফিসের কর্মকর্তা মাঠে পর্যায়ে আলু সংরক্ষনে সার্বক্ষনিক কৃষকদের পরামর্শ প্রদান। বীজ আলু সংকটের আশংকা করছেন কৃষকরা। এই উপজেলায় ৩ হাজার কৃষক, সাড়ে ১৮ হাজার হেক্টর জমিতে আলু রোপন করেছেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার বিহার ইউনিয়নের নাটমরিচাই, পৌর এলাকার বগিলাগাড়ী, লালদহ, দহিলা গ্রামের মাঠের আলু বৃষ্টির পানিতে ডুবে রয়েছে। অনেক কৃষকরা তাদের ডুবে যাওয়ার আলু ক্ষেতের আলুর পানি ছেলে, সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে নিষ্কাশন করছে আবার কেউ কেউ ডুবে যাওয়া অপ্রাপ্ত আলু তুলতে থাকে।


এমন সংবাদ উপজেলা কৃষি অফিসার আল মুজাহিদ সরকার জানার পর তাৎক্ষনিত তিনি সহ অত্র অফিসের কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কেএম রাফিউল ইসলাম কে সঙ্গে নিয়ে পৌর এলাকার দহিলা মাঠে কৃষকদের কাছে ছুটে জান। এসময় তিনি পানিতে ডুবে থাকা আলু উত্তোলন করার পরামর্শ প্রদান করেন এবং অধিকাংশ জমির পানি নিষ্কাশনের জন্য পরামর্শ প্রদান করেন।

আলু চাষী বোরান উদ্দিন, মজনু মিয়া, আঃ কাদের আঃ মজিদ, আবুল কাশেম আলোকিত বগুড়া’র প্রতিনিধিকে বলেন, জীবনে কখনো মাঘ মাসে এ ধরনের বৃষ্টি দেখিনি। বৃষ্টির পানিতে আলুর জমি তলিয়ে থাকায় আমরা হতাশায় রয়েছি। আলু পচে নষ্ট হওয়ার উপক্রম হওয়ায় অপ্রাপ্ত আলু আমরা বাধ্য হয়ে জমি থেকে উঠিয়ে নিচ্ছি। পানিতে ডুবিয়ে থাকা আলু হিমাগারে বীজের জন্য সংরক্ষণ করা যাবে না। যদিও হিমারে আলু সংরক্ষন করা হয় সেক্ষেত্রে আলু নষ্ট হয়ে যাবে। তাই আগামীতে আলু বীজ সংকটের আশংকা রয়েছে বলে আলোকিত বগুড়া’র প্রতিনিধিকে জানান তারা।


ভাসুবিহার গ্রামের আলু চাষী ইব্রাহীম বলেন, আমি ৪ বিঘা জমিতে স্টিক, পাকরি সহ বিভিন্ন জাতের আলু রোপন করেছিলাম, আর মাত্র ২০দিন পর আলু তুলতে হতো বর্তমানে ২৫০ টাকা মনে বিক্রি করা হচ্ছে। অথচ এই আলু ১মাস পর ৩৫০ টাকা দরে বিক্রি করা যেতো।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আল মুজাহিদ সরকার আলোকিত বগুড়া’র প্রতিনিধিকে বলেন, হঠাৎ বৃষ্টিতে এলাকার অধিকাংশ জমির আলু পানিতে ডুবে যাওয়ায় ইতিমধ্যে উপজেলার প্রতিটি বøকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের সার্বক্ষনিক কৃষকদের পাশে থেকে আলুর ফসল রক্ষার্থে কাজ করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে আমি মনে করি আর যদি বৃষ্টি না হয়ে ক্ষেত্রে কৃষক আলু রক্ষা হবে, অন্যথায় আলু পচন ধরার সম্ভাবনা রয়েছে।


Facebook Comments Box

Posted ১০:৪৩ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২

Alokito Bogura। Online Newspaper |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

সম্পাদক ও প্রকাশক:

এম.টি.আই স্বপন মাহমুদ

বার্তা সম্পাদক: এম.এ রাশেদ

অস্থায়ী অফিস:

তালুকদার শপিং সেন্টার (৩য় তলা),

নবাববাড়ি রোড, বগুড়া-৫৮০০।

বার্তাকক্ষ যোগাযোগ:

মুঠোফোন: ০১৭ ৫০ ৯১ ১৮ ৪৫

ইমেইল: alokitobogura@gmail.com

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন কর্তৃক নিবন্ধিত।
তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
error: Content is protected !!