বুধবার ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

মহাস্থানে আন্ডারপাস তরমুজ ব্যবসায়ীদের দখলে; পঁচা তরমুজের দুর্গন্ধ পথচারীদের চরম দুর্ভোগ

সাজু মিয়া, আলোকিত বগুড়া   বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
72 বার পঠিত
মহাস্থানে আন্ডারপাস তরমুজ ব্যবসায়ীদের দখলে; পঁচা তরমুজের দুর্গন্ধ পথচারীদের চরম দুর্ভোগ

বগুড়া টু রংপুর মহা সড়কের শিবগঞ্জ উপজেলায় মহাস্থান আন্ডার পাস এখন তরমুজসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের দখলে। পঁচা ও নষ্ট তরমুজ ভাগে পরিণত হয়েছে এই আন্ডার পাস। ব্যবসায়ীদের দখলে থাকায় চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পথচারী ও যান চলাচলে। ব্যবসায়ীদের দাবী প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই চলছে ব্যবসা।

বর্তমান সরকার যোগাযোগ ব্যবস্থা কে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে এবং বিভিন্ন প্রকল্পের বাধ্যমে দেশের উন্নয়নে কাজ করছেন।  বগুড়া- রংপুর মহাসড়ক চাল লাইন কাজ চলছে এবং প্রায় শেষের  মধ্যেই। যোগাযোগ ক্ষেত্রে যান চলাচলে যাতে কোন দুর্ভোগ পোহাতে না হয় এজন্য রাস্তার গুরুত্ব পূর্নস্থানে দেওয়া হয়েছে ওভার  ব্রীজ বা উড়াল সড়ক এবং স্থানীয় যানবাহন চলাচলের সুবিধার্থে করা হয়েছে আন্ডার পাস।


উপজেলার মহাস্থান এলাকার আন্ডার পাস এখন হয়েছে তরমুজ, মাছ ও ভ্যান ব্যবসায়ীদের নিরাপদ স্থান এবং সিএনজি অটোরিক্সা চালকদের দখলে। এখানে নিয়মিত ক্রয়-বিক্রয় করা হচ্ছে এসব পন্য ও নেওয়া হচ্ছে রাস্তার চাঁদা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাস্তার পার্শ্বে রয়েছে বেশ কয়েকটি তরমুজের আড়ৎ। এসব আড়তে রয়েছে বিভিন্ন রকমের ঘর ভড়া তরমুজ। পাইকারী ও খুচরা বিক্রি করা হচ্ছে এসব তরমুজ। তার পার্শ্বে ভিন্ন চিত্র চোখে পড়ে সেখানে বেশ কয়েক জন ব্যবসায়ী তরমুজ নিয়ে আন্ডার পাস এর নিজে জায়গা দখল করে চালিয়ে যাচ্ছে ব্যবসা। যে সব তরমুজ নষ্ট ও পঁচা বের হচ্ছে তা ফেলা হচ্ছে আন্ডার পাসের নিচেই। যা থেকে পঁচা দুর্গন্ধ সৃষ্টি হচ্ছে। একদিকে দুর্গন্ধের সৃষ্টি অন্যদিকে চান চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে।


নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক বেশ কয়েক জানান, মুক্তি ফল ভান্ডার, আরিফ ফল ভান্ডার, শাহীন ফল ভান্ডার আন্ডার পাস দখল করে তরমুজের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। প্রশাসনের লোকজনও তাদের কিছু বলে না। এদের কারণে অনেক সময় যান চলাচলে বিঘ্নঘটছে।

পথচারী আবুল খায়ের বলেন, তরমুজের আড়ৎ থেকে পঁচা তরমুজ ফেলা দেওয়ায় দুর্গন্ধের সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে সাধারণ মানুষের চরম সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে।


এব্যাপারে ব্যবসায়ী শাহিন ইসলাম বলেন, শুধু আমি নয় এখানকার অন্যান্য আড়ৎদাররা আন্ডার পাস দখল করে ব্যবসা করছি। তবে ১৫/২০ দিন আর এ মৌসুমী ফল থাকবে। এর পর আমরা আন্ডার পাসের নিচের জায়গা ছেড়ে দিবো। তরমুজ পঁচে দুর্গন্ধের কথা তিনি স্বীকার করে বলেন অন্য আড়ৎদার এগুলো পঁচা তরমুজ আন্ডার পাসের নিজ ফেলে রেখে। তবে আমি আমার গুলো পার্শ্ববর্তী নদীতে ফেলে দেই।

ব্যবসায়ী আরিফ বলেন, আন্ডার পাস দখল করে নয়। আমার বিল্ডিং এর সাথে হওয়ায়  আন্ডার পাসের নীচে অনেক সময় তরমুজ নামাতে হয়। শুধু আমি নয় এখানকার সমস্ত আড়ৎ এর লোকজন আন্ডার পাসের নিচে তরমুজ বিক্রি করছে।

এলাকাবাসী বলেন তাইজুল ইসলাম একটি খুঁটির জোরে বেশি ভাগ জায়গা দখল করে রেখেছেন।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিনা আক্তার আলোকিত বগুড়ার প্রতিবেদককে বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Facebook Comments Box

Posted ৭:১৮ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

Alokito Bogura || Online Newspaper |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

উপদেষ্টা:
শহিদুল ইসলাম সাগর
চেয়ারম্যান, বিটিইএ

প্রতিষ্ঠাতা ও প্রকাশক:
এম.টি.আই স্বপন মাহমুদ
বার্তা সম্পাদক: এম.এ রাশেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক: মোঃ সাজু মিয়া

বার্তা, ফিচার ও বিজ্ঞাপন যোগাযোগ:
+৮৮০ ৯৬ ৯৬ ৯১ ১৮ ৪৫
হোয়াটসঅ্যাপ ➤০১৭৫০ ৯১১ ৮৪৫
ইমেইল: alokitobogura@gmail.com

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন কর্তৃক নিবন্ধিত।
তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
error: Content is protected !!