মঙ্গলবার ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

রাশিদাজ্জোহা সরকারি মহিলা কলেজে শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে বিনা রশিদে টাকা নেওয়ার অভিযোগ

আলোকিত বগুড়া   বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
335 বার পঠিত
রাশিদাজ্জোহা সরকারি মহিলা কলেজে শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে বিনা রশিদে টাকা নেওয়ার অভিযোগ

হুমায়ুন কবির সুমন, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: নীতিমালা লঙ্ঘন করে সিরাজগঞ্জে রাশিদাজ্জোহা সরকারি মহিলা কলেজে একাদশ শ্রেনীতে আনুষাঙ্গিক শিক্ষা উপকরণ (ব্যাচ, সোল্ডার, ফোল্ডার ও দ্বিবার্ষিক শিক্ষা পরিকল্পনা) বই দেওয়া নামে বিনা রশিদে শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে (৭’শ) টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে অভিভাবকেরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

আজ বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) সকালে সরেজমিনে কলেজ গিয়ে বিভিন্ন ছাত্রীদের সাথে কথা বলে ওই তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। পরে সাংবাদিকের উপস্থিতি দেখে টাকা নেওয়া বন্ধ করে দেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ।


কলেজ সুত্রে জানা যায়, এবার ২০২২-২০২৩ বর্ষে একাদশ শ্রেণীতে তিনটি বিভাগে মোট ৯৯৪জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছেন। কলেজের নোটিশ বোর্ডে ২০২২-২০২৩ শিক্ষাবর্ষের একাদশ শ্রেণীতে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের অবগত করার জন্য একটি নোটিশ টানানো হয়েছে। নোটিশে উচ্চমাধ্যমিক উপবৃত্তির ফরম আগামী ০৮-০২-২০২৩খ্রিঃ এবং আনুষাঙ্গিক শিক্ষা উপকরণ (ব্যাচ, সোল্ডার, ফোল্ডার ও দ্বিবার্ষিক শিক্ষা পরিকল্পনা) উপকরণ সংগ্রহ করতে নির্দেশ দিয়েছে। সেই মোতাবেক একাদশ শ্রেণীর প্রতিটি শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে বিনা রশিদে (৭’শ) টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। নোটিশ বোর্ডে কোন খাতে কত টাকা নেওয়া হচ্ছে তা টাঙানো নেই।

এ বিষয়ে একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী সুমি খাতুন, জান্নাত খাতুন, মিম খাতুন ও আলেয়া খাতুন সহ বেশ কয়েকজন অভিযোগ করে আলোকিত বগুড়া’কে বলেন, আমাদের নিকট থেকে ৭শ’ টাকা নিচ্ছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, কি কারণে বিনা রশিদে এই টাকা নেওয়া হচ্ছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে কলেজ কর্তৃপক্ষ আমাদের বলেন পরে ক্লাশে জানিয়ে দেওয়া হবে।


একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীর অভিভাবক সিরাজগঞ্জ পৌরসভার ধানবান্ধি মহল্লার সেলিম আহমেদ বলেন, কে এতো টাকা নেওয়া হচ্ছে আমার জানা নেই। তিনি আরো বলেন, এখানে মেয়েকে পড়াচ্ছি সেই কারণে তারা যা বলবে, তাই শুনতে হবে। আরেক অভিভাবক ইয়াছমিন খাতুনসহ একাধিক অভিভাবক বলেন, ৭’শ টাকা নিচ্ছে। কিন্তু কোন রশিদ বা কোন কাগজ দেয়নি।

এ বিষয়ে রাশিদাজ্জোহা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. খাদেমুল ইসলাম ৭’শ টাকা নেওয়া বিষয়টি স্বীকার করে আলোকিত বগুড়া’কে বলেন, আমাদের কলেজে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ ব্যাচ, সোল্ডার, ফোল্ডার ও দ্বিবার্ষিক শিক্ষা পরিকল্পনা একটি বই দেওয়ার জন্য এই টাকা নেওয়া হচ্ছে। বিনা রশিদের টাকা নেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন পরবর্তীতে রশিদ দিয়ে টাকা নেওয়া হবে।


Facebook Comments Box

Posted ৩:১৬ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

Alokito Bogura || Online Newspaper |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

উপদেষ্টা:
শহিদুল ইসলাম সাগর
চেয়ারম্যান, বিটিইএ

প্রতিষ্ঠাতা ও প্রকাশক:
এম.টি.আই স্বপন মাহমুদ
বার্তা সম্পাদক: এম.এ রাশেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক: মোঃ সাজু মিয়া

বার্তা, ফিচার ও বিজ্ঞাপন যোগাযোগ:
+৮৮০ ৯৬ ৯৬ ৯১ ১৮ ৪৫
হোয়াটসঅ্যাপ ➤০১৭৫০ ৯১১ ৮৪৫
ইমেইল: alokitobogura@gmail.com

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন কর্তৃক নিবন্ধিত।
তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
error: Content is protected !!