বুধবার ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

মহাস্থানে ফুটপাতে দোকান, সড়কে গাড়ি; বিপাকে পথচারী, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক, আলোকিত বগুড়া   বুধবার, ০৯ মার্চ ২০২২
70 বার পঠিত
মহাস্থানে ফুটপাতে দোকান, সড়কে গাড়ি; বিপাকে পথচারী, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

বগুড়ার ঐতিহাসিক মহাস্থানগড়ে শায়িত আছেন বিখ্যাত ওলীয়ে কামেল হযরত শাহ সুলতান (রহঃ)। তার মাজার জিয়ারত করতে ও মহাস্থানগড় সম্পর্কে জানতে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে দর্শনার্থী ও মাজার জিয়ারতকারী মুসুল্লিরা মহাস্থানগড়ে ভ্রমনে আসেন। আর এখানে এসেই যেনো ভোগান্তির শেষ নেই। মহাস্থান ত্রি-মোহনী মাজার রোড নামে পরিচিত।

মহাস্থান- শিবগঞ্জ আঞ্চলিক এই রোডে ফুটপাত ও সড়ক দখল করে বসানো হয়েছে সিএনজি চালিতো অটোরিকশা ষ্ট্যান্ড। মহাস্থানগড়ের ব্যস্ততম এ এলাকা শুধু ফুটপাত দখল আর সিএনজি চালিতো অটোরিকশার দখলে নয়। রাস্তার জ্যামে মহাস্থান ত্রিমোহনী থেকে মৎস্য বাজার পর্যন্ত বিশৃঙ্খল ভাবে ব্যাটারি চালিতো অটোরিকশা ও সিএনজি চালিতো অটোরিকশার যেনো বসেছে হাট বাজার। পথচারীদের পায়ে হাটার মত কোন ফাঁক ফুকোর নেই। তার সাথে যোগ হয়েছে মহাস্থান কসাইপট্রি ও মাছ বাজার। তারা রাস্তা দখন করে বসিয়েছে মাংসের চৌকি ও মাছের পসরা।


এখানেই শেষ নয়, মহাস্থান মাজার গেট থেকে মহাস্থান আলিম মাদ্রাসা গেট পর্যন্ত রাস্তার পাশ দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে একটি পানি নিষ্কাশন ড্রেন। ড্রেনের ওপর দিয়ে পথচারীদের চলাচলের জন্য দেওয়া হয়েছে ঢাকনা। এই ফুটপাত পথচারীদের চলাচলের জন্য রাখা হলেও তা অসৎ উদ্দেশ্যে দখল করে রাখা হয়েছে দোকানপাট ও সামগ্রী।

আজ বুধবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মহাস্থান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, উচ্চ বিদ্যালয়, মহাস্থান মাহীসওয়ার ডিগ্রী কলেজ, আলিম মাদ্রাসা, মহাস্থান মর্নিংসান কেজি এ্যান্ড হাইস্কুল, ইকরা মডেল ও মকবুল হোসেন আদর্শ কিন্ডারগার্টেন স্কুলের ছাত্র- ছাত্রীসহ তাদের অভিভাবকেরা স্কুলে যাচ্ছেন পায়ে হেটে। কিন্তু মহাস্থান স্কুল মার্কেট ও ত্রিমোহনী এলাকায় দেখা যায়, বেশ কয়েকটি ভ্যারাইটি স্টোর অর্থাৎ পানীর পাম্প সামগ্রীর দোকানীরা ফুটপাত দখল করে তাদের বিক্রিত পানীর ট্যাংকি, পাইপ, গ্যাস সিলিন্ডার, মোটরসাইকেল সহ নানা সামগ্রী রেখে ফুটপাত প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে। ফলে শিক্ষার্থীদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মূল সড়ক ব্যবহার করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াত করতে হচ্ছে।


এদিকে মহাস্থানগড়ে আশা ভ্রমন পিপাসু ও শিবগঞ্জ উপজেলায় কেউ জরুরি কাজে বের হলে মহাস্থান ত্রিমোহনী সিএনজি ষ্ট্যান্ড জ্যামে আটকে দীর্ঘ সময় চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়। অনেকে আবার যানজট দেখে গাড়ি থেকে নেমে হেঁটেই মহাস্থানগড়ে যেতে চেষ্টা শুরু করছেন। কিন্তু বিপত্তি বেঁধেছে সেখানেই। ত্রিমোহনী ফুটপাত দখল করে দোকান আর সড়ক দখল করে ত্রী-হুইলার। যে কারণে ফুটপাত দিয়ে হেঁটে চলার যেন কোনো উপায়ই নেই। বাধ্য হয়ে ফুটপাত ছেড়ে সড়ক দিয়ে হাঁটছে পথচারীরা। এতে যেকোন সময় সড়ক দুর্ঘটনায় কবলিত হতে পারে এসব ভুক্তভোগী পথচারী।

মহাস্থান ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন লালুর সাথে কথা বললে তিনি আলোকিত বগুড়া’কে বলেন, “সারাবিশ্বে সর্বপরিচিত বগুড়ার ঐতিহাসিক মহাস্থানগড়” এ এলাকা পর্যকট ও মাজার জিয়ারতকারী ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকার কারণে অনেক জনবহুল এলাকা। এজন্য এলাকার মান উন্নয়ন হচ্ছে। কিন্তু সড়কে অব্যবস্থাপনা আমাদের দুর্ভোগে ফেলছে। বিশেষ করে মহাস্থান ত্রিমোহনী এলাকায় সব সময় যানবাহনের ভিড় লেগেই থাকে। ফুটপাত দখল করে দোকান গুলো বেশি ক্ষতি করছে। এলাকার মানুষদের চলাচলে খুবই সমস্যা। এ বিষয়ে জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি প্রশাসনের সাথে কথা বলে দ্রুত এই সমস্যা নিরসন করবেন বলে জানিয়েছেন।


এবিষয়ে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উন্মে কুলসুম সম্পার সাথে কথা বললে তিনি আলোকিত বগুড়া’কে জানান, মহাস্থান সবচেয়ে বড় একটি সমস্যা হলো মহাস্থান ত্রিমোহনী এলাকায় সিএনজি চালিতো অটোরিকশার জ্যাম। এই সিএনজি চালিতো অটোরিকশার ষ্ট্যানটি আমরা অন্য কোথাও সরে নেওয়ার চেষ্টা করছি। সেই সাথে যারা ফুটপাত দখল করে দোকানপাট ও দোকানের সামনে যত্রতত্র পণ্যসামগ্রী রেখে জনগণের চলাচলে দুর্ভোগ সৃষ্টি করছে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থাসহ দখলমুক্ত অভিযান চালানো হবে।

Facebook Comments Box

Posted ৮:০৬ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০৯ মার্চ ২০২২

Alokito Bogura। Online Newspaper |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

সম্পাদক ও প্রকাশক:

এম.টি.আই স্বপন মাহমুদ

বার্তা সম্পাদক: এম.এ রাশেদ

অস্থায়ী অফিস:

তালুকদার শপিং সেন্টার (৩য় তলা),

নবাববাড়ি রোড, বগুড়া-৫৮০০।

বার্তাকক্ষ যোগাযোগ:

মুঠোফোন: ০১৭৫০ ৯১১ ৮৪৫

ইমেইল: alokitobogura@gmail.com

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন কর্তৃক নিবন্ধিত।
তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
error: Content is protected !!