শুক্রবার ২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

বগুড়ায় কৃষক ফ্রন্টের মানববন্ধন-সমাবেশ ও স্মারকলিপি পেশ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত

এস এম দৌলত, স্টাফ রিপোর্টার   রবিবার, ৩০ মে ২০২১
114 বার পঠিত
বগুড়ায় কৃষক ফ্রন্টের মানববন্ধন-সমাবেশ ও স্মারকলিপি পেশ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত

আসন্ন জাতীয় বাজেটে উন্নয়ন বরাদ্দের ৪০% কৃষি খাতে বরাদ্দ ও প্রতি ইউনিয়নে কমপক্ষে ১টি সরকারি ক্রয়কেন্দ্র খুলে, প্রতিমণ ধান দাম ১৫০০ টাকা নির্ধারণ করে খোদ কৃষকের নিকট থেকে ধান ক্রয় করা, বি.এ.ডি.সি-কে সচল করা, সার, বীজ, কীটনাশকসহ ভেজালমুক্ত কৃষি উপকরণ কৃষকদের মাঝে সরবরাহ করার দাবিতে-সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্ট এর কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশহিসাবে বগুড়া জেলা শাখার উদ্যোগে আজ ৩০ মে ২০২১ বেলা ১২:০০ টায় সাতমাথায় মানববন্ধন- সমাবেশ ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে অর্থমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের জেলা সভাপতি বাসদ বগুড়া জেলা আহ্বায়ক কমরেড এ্যাড.সাইফুল ইসলাম পল্টু, বক্তব্য রাখেন বাসদ বগুড়া জেলা সদস্যসচিব সাইফুজ্জামান টুটুল, কৃষক ফ্রন্ট বগুড়া জেলা সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, জেলা সংগঠক দেলোয়ার হোসেন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জেলা সভাপতি ধনঞ্জয় বর্মন প্রমূখ নেতৃবৃন্দ।


কমরেড সাইফুল ইসলাম পল্টু বলেন, আমাদের দেশ কৃষি প্রধান দেশ। মোট গ্রামীন শ্রমশক্তির ৬০ ভাগের বেশি নিয়োজিত কৃষিতে। জিডিপির প্রায় ১৬% আসে কৃষি থেকে। অথচ বাজেটে বরাবরি কৃষিখাত থাকে অবহেলিত। কৃষি এবং কৃষক বাঁচাতে আসন্ন জাতীয় বাজেটে উন্নয়ন বরাদ্দের ৪০% কৃষি খাতে বরাদ্দ ও প্রতি ইউনিয়নে কমপক্ষে ১টি সরকারি ক্রয়কেন্দ্র খুলে, প্রতিমণ ধানের দাম ১৫০০ টাকা নির্ধারণ করে খোদ কৃষকের নিকট থেকে ধান ক্রয় করা, বি.এ.ডি.সি-কে সচল করা, সার, বীজ, কীটনাশকসহ ভেজালমুক্ত কৃষি উপকরণ কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সরবরাহ করা সময়ের দাবি। কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ, কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউটসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবারে বোরো ধানের উৎপাদন খরচ গড়ে ২৬ টাকার উপরে পড়েছে বলে জানিয়েছে। সে ক্ষেত্রে আমরা দীর্ঘ দিন ধরে দাবি করে আসছি যে, উৎপাদন খরচের সাথে ৪০% মূল্য সংযোজন করে ধানের দাম নির্ধারণ করতে হবে। এটা না করলে দেশের কৃষি-কৃষক কৃষি কাজ করে টিকে থাকতে পারবে না। ফলে উৎপাদন খরচের সাথে ৪০% মূল্য সংযোজন করলে ধানের দাম মণপ্রতি ১৫০০ টাকা নির্ধারণ করার জোর দাবি জানান।

কমরেড সাইফুজ্জামান টুটুল বলেন, কৃষক আজ নানামূখি সংকটে জর্জরিতে। একদিকে সার, বীজ, কীটনাশক, ডিজেলের দাম দিন দিন বাড়ছে। অন্য দিকে অসাধু মুনাফাভোগী ব্যবসায়ীরা এই সকল কৃষি উপকরণে দিচ্ছেন ভেজাল। কৃষক ফসলের ন্যয্য দাম পাচ্ছে না। সহজ শর্তে সরল সুদে কৃষি ঋনের ব্যবস্থা নেই। ক্ষেতমজুরদের সারা বছর কাজ নেই। কৃষি ভিত্তিক শিল্প স্থাপন করে বেকার সমস্যা সমাধানের সরকারি উদ্যোগ নেই, নেই গ্রামীন গরীব মানুৃষের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা। অপরিকল্পিতভাবে ইটভাটা, রাস্তাঘাট, ঘর বাড়ি, আবাসন কলকারখানা নির্মাণের ফলে প্রতিবছর ১ শতাংশ হারে কৃষি জমি অকৃষি খাতে চলে যাচ্ছে। এতে দেশের খাদ্য নিরাপত্তা মারাত্মক হুমকীর মুখে পড়ার সম্ভাবনা ক্রমেই বাড়ছে। তাই এই সংকট নিরশসনে আসন্ন জাতীয় বাজেটে উন্নয়ন বরাদ্দের ৪০% কৃষি খাতে বরাদ্দের দাবি জানান।


অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বলেন, গত বছরের এই সময়ে খাদ্য মজুদ ছিল ১২ লাখ টন, এ বছর তা তলানীতে নেমে এসে ৩ লাখ টনে ঠেকেছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে কমপক্ষে ১৫ লাখ টন খাদ্য মজুদ থাকা উচিত। না হলে বাজারে অস্থিরতা তৈরি হতে বাধ্য। সরকারের ভ‚ল নীতির ফলে একদিকে কৃষক ন্যায্য দাম থেকে বঞ্চিত হচ্ছে, অন্যদিকে বাজারে বাড়তি দামে চাল কিনতে বাধ্য হচ্ছে ভোক্তা সাধারণ। কারণ কৃষক ধান উৎপাদন করে, চাল নয়। আর সরকার চাল বেশি কিনে ধান কম কেনে। এতে সরকার মধ্যসত্ত¡ভোগী চাতাল ও মিল মালিকদের মুনাফার স্বার্থই রক্ষা হয়। তাই কৃষি ও কৃষক বাঁচাতে কৃষিতে মূল্য সহায়তা দিয়ে ধানের দাম মণপ্রতি ১৫০০ টাকা নির্ধারণ করে কৃষক ও ভোক্তা বাঁচাতে বোরো মৌসুমে প্রতি ইউনিয়নে ক্রয় কেন্দ্র খুলে খোদ কৃষকের কাছ থেকে কমপক্ষে ৫০ লাখ টন ধান ক্রয় করা এবং আসন্ন জাতীয় বাজেটে উন্নয়ন বরাদ্দের ৪০% কৃষি খাতে বরাদ্দের দাবি জানান।

Facebook Comments Box


Posted ২:৪৭ অপরাহ্ণ | রবিবার, ৩০ মে ২০২১

Alokito Bogura। সত্য প্রকাশই আমাদের অঙ্গীকার |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

সম্পাদক ও প্রকাশক:

এম.টি.আই স্বপন মাহমুদ

বার্তা সম্পাদক: এম.এ রাশেদ

বার্তাকক্ষ যোগাযোগ:

০১৬ ১০ ৯১ ১৮ ৪৫

ইমেইল: alokitobogura@gmail.com

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন কর্তৃক নিবন্ধিত।। তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
''আলোকিত বগুড়া'' সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক বগুড়া থেকে প্রকাশিত।
error: Content is protected !!