সোমবার ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পাচ্ছেন শেরপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রশিক্ষক ওমর ফারুক

নিজস্ব প্রতিবেদক, আলোকিত বগুড়া   বৃহস্পতিবার, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২১
47 বার পঠিত
জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পাচ্ছেন শেরপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রশিক্ষক ওমর ফারুক

জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান নীতিমালা-২০১৭ অনুযায়ী জাতীয় জনসংখ্যা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট নিপোর্ট ও এর আওতাধীন আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের শুদ্ধাচার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন বগুড়ার শেরপুর জাতীয় জনসংখ্যা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (নিপোর্ট) আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রশিক্ষক কর্মকর্তা ওমর ফারুক ।

গত জুন মাসে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের পরিচালক প্রশাসন ও যুগ্মসচিব ড. মোঃ আবুল হাসান স্বাক্ষরিত জারি হওয়া এক প্রজ্ঞাপণে এ তথ্য জানানো হয়।


জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হওয়ার পর তার অনুভূতি কেমন জানতে চাইলে তিনি আলোকিত বগুড়া’কে বলেন, বর্তমানে সারাদেশে মোট ২০টি আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে কর্মকর্তা কর্মরত আছেন তারমধ্যে থেকে এ পুরস্কারের জন্য আমি নির্বাচিত হয়েছি এটা নিশ্চয় অনেক পাওয়া। এজন্য আমি মহান আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি। পাশাপাশি বর্তমান কর্মস্থল শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ময়নুল ইসলামসহ উপজেলা প্রশাসনের সর্বস্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

মোহাম্মদ ওমর ফারুক শেরপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রশিক্ষক কর্মকর্তা হিসেবে যোগদানের পর হতে সততা ও কর্তব্যনিষ্ঠার সঙ্গে বগুড়া, জয়পুরহাট, গাইবান্ধা, রংপুরের একাংশের মাঠ পর্যায়ের কর্মচারীদের প্রশিক্ষণ এর জন্য নিরালসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি এই আঞ্চলিক কেন্দ্র যোগদানের পর থেকে আঞ্চলিক কেন্দ্র টির ও প্রশিক্ষণার্থীদের গুণগতমান বৃদ্ধি পায় গতিশীল হয়। সততার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন।


যে সব গুণাবলীর জন্য শুদ্ধাচার পুরস্কার দেওয়া হয়: সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর পেশাগত জ্ঞান ও দক্ষতা, সততার নিদর্শন স্থাপন করা, নির্ভরযোগ্যতা ও কর্তব্যনিষ্ঠা, শৃঙ্খলাবোধ, সহকর্মীদের সঙ্গে আচরণ, সেবাগ্রহীতার সঙ্গে আচরণ, প্রতিষ্ঠানের বিধিবিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকা, সমন্বয় ও নেতৃত্বদানের ক্ষমতা, তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে পারদর্শিতা, পেশাগত স্বাস্থ্য ও পরিবেশ বিষয়ক নিরাপত্তা সচেতনতা, ছুটি গ্রহণের প্রবণতা, উদ্ভাবনী চর্চার সক্ষমতা, বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে তৎপরতা, সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার, স্বপ্রণোদিত তথ্য প্রকাশে আগ্রহ, উপস্থাপন দক্ষতা, ই-ফাইল ব্যবহারে আগ্রহ, অভিযোগ প্রতিকারে সহযোগিতা করা।

গেজেটে আরো বলা হয়, শুদ্ধাচার পুরস্কার পাওয়ার ক্ষেত্রে সরকারি কর্মচারীকে উল্লিখিত সূচকের ১০০ নম্বরের মধ্যে অবশ্যই ৮০ নম্বর পেতে হবে। এটি না পেলে ওই কর্মকর্তা ও কর্মচারী এ পুরস্কার পাওয়ার জন্য প্রাথমিকভাবে বিবেচিত হবেন না। আর বিবেচিত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া কর্মচারী শুদ্ধাচার পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হবেন।


উল্লেখ্য, বগুড়ার শেরপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে প্রশিক্ষক কর্মকর্তা হিসেবে মোহাম্মদ ওমর ফারুক ২০১৮সালে শেরপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে কর্ম জীবন শুরু করেন। পারিবারিক জীবনে তিনি এক ছেলের জনক। ওমর ফারুক টাঙ্গাইল জেলার জেলার কালিহাতী উপজেলার মো: রফিকুল ইসলাম ও মিসেস মর্জিনা বেগম দম্পতির সন্তান।

Facebook Comments Box

Posted ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২১

Alokito Bogura। সত্য প্রকাশই আমাদের অঙ্গীকার |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

সম্পাদক ও প্রকাশক:

এম.টি.আই স্বপন মাহমুদ

বার্তা সম্পাদক: এম.এ রাশেদ

বার্তাকক্ষ যোগাযোগ:

০১৭ ৫০ ৯১ ১৮ ৪৫

ইমেইল: alokitobogura@gmail.com

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন কর্তৃক নিবন্ধিত।। তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
''আলোকিত বগুড়া'' সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক বগুড়া থেকে প্রকাশিত।
error: Content is protected !!